Wednesday, December 7, 2022
Homeদেশ'জলাতঙ্কে মৃত্যু আর নয়, সবার সাথে সমন্বয়'

‘জলাতঙ্কে মৃত্যু আর নয়, সবার সাথে সমন্বয়’


‘জলাতঙ্ক : মৃত্যু আর নয়, সবার সাথে সমন্বয়’- এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে প্রতিবছরের মতো এ বছরও বিশ্ব জলাতঙ্ক দিবস ২০২২ পালিত হয়েছে।  

দিবসটি উপলক্ষে আজ বুধবার দিনের শুরুতে জলাতঙ্ক রোগ সম্পর্কে সচেতনতা বিষয়ক বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রার আয়োজন করা হয়। শোভাযাত্রাটি সকাল ৯টায় প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের চত্বর থেকে শুরু হয়ে খামার বাড়ি মোড় ঘুরে আবার প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরে এসে শেষ হয়।

এ ছাড়া রাজধানীর খামার বাড়ি সংলগ্ন প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের সভাকক্ষে জলাতঙ্ক বিষয়ক সেমিনারের আয়োজন করা হয়।

বিজ্ঞাপন

সেমিনারে জলাতঙ্ক রোগ প্রতিরোধ ও সচেতনতা বৃদ্ধির ওপর বৈজ্ঞানিক প্রবন্ধ উপস্থাপন করা হয়।

সেমিনারে দেশবরেণ্য ভেটেরিনারিয়ান ও প্রফেসর ডা. নীতিশ চন্দ্র দেবনাথ বলেন, ‘এ পর্যন্ত বাংলাদেশে ২২ লাখ জলাতঙ্ক রোগের টিকা দেওয়া হয়েছে। আগের তুলনায় ভ্যাকসিন প্রদানের সংখ্যা বেড়েছে; কিন্তু র‌্যাবিস আক্রান্তের সংখ্যা গত বছরের তুলনায় বেড়েছে। ‘

তিনি আরো বলেন, ‘আমরা যদি সমন্বিতভাবে কাজ করি তাহলে ২০৩০ সালের আগেই জলাতঙ্কমুক্ত বাংলাদেশ হিসেবে বিশ্বের বুকে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পারব। সরকারের পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট সব সংস্থা যদি মন থেকে জলাতঙ্ক নিরাময়ে কাজ করে তাহলে এসডিজি বাস্তবায়নের সঙ্গে জলাতঙ্ক রোগ ২০৩০ সালের মধ্যে নির্মূল করা সম্ভব। ‘

সেমিনারে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রি. জেনারেল মো. জুবাইদুর রহমান বলেন, ‘গত ৩০ বছরে নতুন ২০ রোগের আবির্ভাব হয়েছে। এদের অধিকাংশই জুনোটিক রোগ। ‘

তিনি বলেন, ‘জলাতঙ্ক একটি অন্যতম জুনোটিক রোগ। এ রোগ প্রতিরোধের জন্য ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে ২০২১ সালে ২২ হাজার কুকুরকে টিকা প্রদান করা হয়। এ ছাড়া কুকুর সরাসরি নিধন না করে স্ট্রিট ডগের অভয়ারণ্য নির্মাণের লক্ষ্যে দুই বিঘা জমি বরাদ্দ করা হয়েছে। প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের কল্যাণে দেশে আজ প্রাণিজ আমিষের বিপ্লব ঘটেছে। ‘

জলাতঙ্ক রোগ ও তা নিরাময়ে করণীয় সম্পর্কে বৈজ্ঞানিক প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের পরিচালক ডা. মো. আবু সুফিয়ান, ডা. মো. আজিজুল ইসলাম ও ডা. সুকেশ চন্দ্র বাদয় প্রমুখ।  

অনুষ্ঠানে প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের পরিচালক (প্রশাসন) ডা. মো. এমদাদুল হক তালুকদারের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডা. মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহজাদা।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ভেটেরিনারি অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডা. এস এম নজরুল ইসলাম, ওয়ার্ল্ড অর্গানাইজেশন অব এনিম্যাল হেলথ-এর কান্ট্রি ডিরেক্টর ডা. নূরে আলম সিদ্দিকী, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ তথ্য দপ্তরের তথ্য কর্মকর্তা ডা. মো. এনামুল কবীর প্রমুখ।



RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

জনপ্রিয় খবর